ঢাকাThursday , 13 August 2020
  • অন্যান্য

অচেনা পরিস্থিতিতেও চিরচেনা মাহিয়া মাহি

news
August 13, 2020 5:25 am । ৮৪ জন
Link Copied!

অনলাইন ডেস্ক : দেশীয় চলচ্চিত্রের দর্শকপ্রিয় অভিনেত্রী মাহিয়া মাহি। ক্যারিয়ার ও ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বছরজুড়েই থাকেন আলোচনায়। বিশ সালও শুরু করেছিলেন হাফ ডজন নতুন সিনেমার খবর দিয়ে। করোনা মহামারির মধ্যে কিছুদিন ঘরবন্দি থাকলেও ফের নেমেছেন কাজে। তার অভিনীত বিজ্ঞাপন ও স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র এরই মধ্যে এসেছে আলোচনায়।

‘ভালোবাসা আজকাল’, ‘পোড়ামন’ ও ‘অগ্নি টুুর মতো চলচ্চিত্রে অভিনয় করে রাতারাতি তারকাবনে যান চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। সঙ্গে যৌথ প্রযোজনার ছবিতেও মাত করেছেন ওপার বাংলা। করোনার মধ্যে অন্য নায়িকরা যখন অলস সময় পাড় করছেন, মাহি তখন হাঁটছেন উল্টো পথে। লকডাউন শিথিল হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ফিরেছেন কাজে। জনসচেতনতামূলক সরকারি বিজ্ঞাপন, একাধিক টিভিসি ও একটি স্বল্প দৈর্ঘ্যে কাজ করে নিজেকে ব্যস্ত রেখেছেন মহামাহির এই সময়ে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে চলতি মাসের বিশ তারিখ শুরু করতে পারেন চলচ্চিত্রের শুটিংও। লকডাউনের মধ্যেও মাহির যেন দম ফেলার ফুরসত নেই। অনেকটা অচেনা পরিস্থিতিতেও চিরচেনা মাহির দেখা পাচ্ছেন দর্শক।

এদিকে কোরবানি ঈদে মুক্তি পাওয়া মাহির ‘অক্সিজেন’ শিরোনামের স্বল্প দৈর্ঘ্যটি আলোচনায় এসেছে। কোনো এক মধ্যবিত্ত পরিবারের বর্তমানের চিরচেনা কাহিনী নিয়ে নির্মিত হয়েছে এটি। স্বল্প দৈর্ঘ্যটির পুরো গল্পে করোনাকালে বাবাকে নিয়ে বেঁচে থাকার এক মেয়ের যুদ্ধ তুলে ধরা হয়েছে। এতেব মেয়ে হিসেবে অভিনয় করেছেন ‘অগ্নি টু’ খ্যাত নায়িকা। জীবনের প্রথম স্বল্প দৈর্ঘ্য নিয়ে মাহির উচ্ছ্বাসও ছিল চোখে পড়ার মতো। এটি পরিচালনা করেছেন চলচ্চিত্রে নির্মাতা রায়হান রাফি।

এতে দেখা যায়, উদ্ভাস্তুর মতো শহরের রাস্তায় এক মাথা থেকে আরেক মাথায় ছুটে বেড়াচ্ছেন মাহি। অসুস্থ বাবার জন্য অ্যাম্বুলেন্স পাচ্ছেন না। শেষ পর্যন্ত তা পেলেও মুখোমুখি হতে হয় আরও এক সংগ্রামের। বাবাকে নিয়ে ২০টি হাসপাতালে যাওয়ার পরও ভর্তি করাতে পারেননি। এটি প্রচারিত হওয়ার পরপরই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ছেয়ে যায় মাহি বন্ধনায়।

মাহি নিজেও মানছেন, এটা তার ক্যারিয়ারের সেরা কাজ। অকপটে সেটা স্বীকারও করেছেন নিজের ফেসবুক পাতায়। লিখেছেন ‘এটি আমার জীবনের সেরা কাজ, আমার সেরা অভিনয়। এ পর্যন্ত কতবার যে এটা দেখলাম, বলে শেষ করতে পারব না।’ মাহি ছাড়াও ‘অক্সিজেন’-এর বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন রাশেদ মামুন অপু, ফরহাদ লিমন, মাহাদি হাসান পিয়াল ও আনোয়ার হোসেন।

এদিকে পাঁচ বছর আগে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ‘স্করপিয়ন’ খোলার ঘোষণা দিয়েছিলেন এই নায়িকা। প্রথম ছবি পরিচালনার কথা ছিল জাকির হোসেন রাজুর। কিন্তু এত দিনেও আলোর মুখ দেখেনি প্রতিষ্ঠানটি। প্রযোজক হিসেবেও পর্দায় ওঠেনি মাহির নাম। তবে হাল ছাড়েননি তিনি। সেই চেষ্টা এবার সফল হতে চলেছে। যদিও বড় পর্দা নয়, প্রযোজক মাহির অভিষেক ঘটছে ওটিটি পস্নাটফর্মে। পরিচালক রায়হান রাফিকে দিয়ে একটি ওয়েব সিরিজ নির্মাণ করাচ্ছেন মাহি। গতমাস থেকে ঢাকা ও গাজীপুরের বিভিন্ন লোকেশনে শুরু হয়েছে শুটিং।

এ বিষয়ে মাহি বলেন, ‘সিরিজটি চার পর্বের। কেন্দ্রীয় চরিত্রেই আমি অভিনয় করছি। আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে থাকবেন পলাশ। এর গল্প লিখেছেন রায়হান রাফি। সিরিজটির নাম এখনো ঠিক করিনি। তবে কোন পস্নাটফর্মে প্রকাশ করব, তা নিয়ে এখনই ভাবছি না। আগে শুটিং শেষ করতে চাই। আশা করছি, ভক্তরা ভালো কিছু পাবেন।’

লকডাউনের মধ্যেই একাধিক বিজ্ঞাপনে কাজ করেছেন মাহি। সম্প্রতি সিভিল অ্যাভিয়েশনের সচেতনতামূলক একটি বিজ্ঞাপন ও ডকুমেন্টারি শুটিং করেছেন এই নায়িকা। বিজ্ঞাপনে অভিনয়ের পাশাপাশি এটি নির্মাণ করেছেন অভিনেতা ও আলোচিত উপস্থাপক শাহরিয়ার নাজিম জয়। মাহি-জয় ছাড়াও এ বিজ্ঞাপনে অভিনয় করেছেন নজরুল কোরাইশী। অপরদিকে মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে মাহির রক্ত, স্বপ্নবাজি ও আনন্দ অশ্রম্নসহ হাফ ডজনের মতো সিনেমা।