ঢাকাFriday , 9 February 2024
  • অন্যান্য

কালিয়াকৈরে র‍্যাবের অভিযানে চাঁদাবাজ চক্রের ৮সদস্য গ্রেফতার।

news
February 9, 2024 10:45 pm । ১৬৯৪ জন
Link Copied!

কালিয়াকৈরে র‍্যাবের অভিযানে চাঁদাবাজ চক্রের ৮সদস্য গ্রেফতার।
তুষার আহম্মেদ কালিয়াকৈর(গাজীপুর)প্রতিনিধি:
গাজীপুরের কালিয়াকৈরের বিভিন্ন এলাকা থেকে অভিযান চালিয়ে চলন্ত পরিবহন থামিয়ে পরিবহন থেকে চাঁদা আদায়কারী চক্রের আটজন চিহ্নিত চাঁদাবাজ কে গ্রেফতার করেছে গাজীপুর র‍্যাব১।পরবর্তীতে র‍্যাব বাদী হয়ে আটজনের নাম উল্লেখ করে কালিয়াকৈর থানায় আট জন আসামিকে হস্তান্তর করে মামলা দায়ের করেছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কালিয়াকৈর থানার এসআই রাহাত আকন্দ জানান ৮ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার র‍্যাব ১ কালিয়াকৈর টু- ফুলবাড়িয়া আঞ্চলিক সড়কের চাপাইর ব্রিজের দক্ষিণ পাশ হতে দুইজন কালিয়াকৈর বাজার হতে ধামরাই আঞ্চলিক সড়কের সাহেব বাজার এলাকা হতে এবং উপজেলার হবুয়ার চালা এলাকা হতে বাকি ৬ জন পরিবহন চাঁদাবাজদের গ্রেফতার করে।পরে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বৃহস্পতিবার রাতে তাদেরকে থানায় নিয়ে এসে মামলা রজু করে আসামিদের থানায় হস্তান্তর করেন। আসামিরা হলেন১) মোহাম্মদ রাব্বি (২০)পিতা সুরুজ মিয়া,২)জয়দেব ধর(২১)পিতা লক্ষণ সূত্রধর উভয়ের বাড়ি কালিয়াকৈর উপজেলার চাঁপাইরগ্রামে।বাকী ৩)ইসমাইল সরকার(৪২)পিতা-মৃত ইউনুস আলী ৪)রাজিব সরকার(৩২)পিতা রাকিব সরকার ৫)মাসুদ(৩২)পিতা আতশ আলী, ৬)জাকির হোসেন(৪১) মৃত শাহ আলম ৭)আমজাদ হোসেন(৩৫)পিতা আব্দুল কুদ্দুস, ৮)সাহেদ সরকার(৩০)পিতা লুৎফর রহমান সবার বাড়ি উপজেলার হবুয়ার চালা গ্রামে। র‍্যাব সূত্র থেকে আরও জানা গেছে, দীর্ঘদিন যাবত পরিবহন নেতাদের ছত্রছায়ায় বেশ কিছু চিহ্নিত চাঁদাবাজ উপজেলার বিভিন্ন আঞ্চলিক সড়কের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে চলমান ট্রাক, পিকআপ ও বিভিন্ন ধরনের মালবাহী ও ব্যক্তিগত যানবাহন থামিয়ে দিনরাত চাঁদাবাজি করছে।নাম প্রকাশ না করা শর্তে পরিবহন সেক্টর এর এক মালিক জানান,পরিবহনের কিছু অসাধু এবং লোভি নেতাদের কারণে মূলত তারাই কিছু চাঁদাবাজদের দিয়ে দিন-রাত শিফটিং করে এই সড়ক গুলোতে বেপরোয়া চাঁদাবাজি করছেন।কালিয়াকুর থানার ওসি (তদন্ত)মোহাম্মদ সাব্বির রহমান জানান,ইতিপূর্বে বিভিন্ন সময়ে এ ধরনের অভিযোগ পেয়ে হাতেনাতে কিছু চাঁদাবাজদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হয়েছে ভবিষ্যতেও এ ধরনের পরিবহনের চাঁদাবাজদের গ্রেফতারে পুলিশ কার্যকরী ভূমিকা রাখবে।