ঢাকাSaturday , 22 August 2020
  • অন্যান্য

ঢাকায় ভারী বৃষ্টিতে দুর্ভোগ চরমে

news
August 22, 2020 12:43 pm । ১৬৬ জন
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক : গত কয়েকদিন ধরে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশেই বৃষ্টি হচ্ছে। এই কয়েকদিনে ঢাকায় বৃষ্টির পরিমাণ কম হলেও শুক্রবার রাত থেকে বৃষ্টির পরিমাণ বেড়েছে। বিশেষ করে শনিবার সকালে দীর্ঘ সময় ধরে রাজধানীতে মুষলধারে বৃষ্টি হয়েছে। এতে পানির নিচে তুলিয়ে গেছে অলিগলিসহ রাজধানীর অনেক রাস্তা।

সকাল থেকে ভারী বৃষ্টির কারণে কর্মস্থলে যাওয়া মানুষ বিপাকে পড়েছেন। জলজটের পাশাপাশি যানজট দেখা দেয়ার দুর্ভোগ আরও চরমে পৌঁছেছে। ভারি বৃষ্টির কারণে অফিসগামী মানুষ বেশি সমস্যায় পড়েছেন। এছাড়া খেটে খাওয়া মানুষ ও ফুটপাতের দোকানিদেরও সমস্যায় পড়তে হয়েছে বৃষ্টির কারণে। তারপরেও যানজট আর জলজটের সঙ্গে এক ধরনের যুদ্ধ করেই গন্তব্য যেতে হচ্ছে নগরবাসীকে।

মগবাজারের দিলু রোডের বাসিন্দা সোহেল রানা অফিসে যাওয়ার জন্য মগবাজার মোড়ে বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। পুরো শরীর ভেজা অবস্থায় তিনি ফ্লাইওভারের নিচে বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। ঢাকাটাইমসকে তিনি বলেন, উত্তরায় অফিসে যাওয়ার বাসা থেকে বের হওয়ার পরই তুমুল বৃষ্টি শুরু হয়। কিন্তু বৃষ্টির যে গতি তাকে কাছে ছোট ছাতা থাকলেও রেহাই পাওয়া যায়নি। পুরো শরীর ভিজে একাকার হয়ে গেছে।

সোহেলের মতো বাসের জন্য অপেক্ষমান অনেক যাত্রীর এমনই অবস্থা লক্ষ্য করা গেছে। কারো প্যান্ট, পায়জামা ভিজে গেছে। আবার কারো পুরো শরীর ভিজে গেছে। বৃষ্টির পাশাপাশি গণপরিবহনের সংখ্যা কম থাকায় এবং ড্রেনের ময়লা পানির মিশে একাকার হয়ে এই দুর্ভোগ আরও চরমে পৌঁছেছে।

ভারী বৃষ্টিতে রাজধানীর অধিকাংশ সড়ক চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। রাজধানীর অপেক্ষাকৃত নিচু এলাকায় পানি জমে গেছে। সেই পানিতে ভাসছে নোংরা-আবর্জনা। অনেক রাস্তায় জমেছে কাদাপানি। সেই সঙ্গে স্যুয়ারেজের পানি উপচে পড়ছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, লঘুচাপের ফলে ১৫ আগস্ট থেকে কয়েকদিন সারাদেশেই বৃষ্টি হচ্ছে। আজও এ কারণে বৃষ্টি হচ্ছে।

শনিবার ভোর সাড়ে ৫টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরের পূর্বাভাসে আবহাওয়া অধিদপ্তর এ তথ্য জানিয়েছে।

সংস্থাটি বলছে, লঘুচাপের শুরু থেকে সমুদ্রবন্দরে রয়েছে ৩ নম্বর সতর্কতা, বহাল থাকছে সেটিও। ধারাবাহিক ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাসও বহাল রয়েছে। দেশের ১৯টি অঞ্চলের উপর দিয়ে আজ ঝড়বৃষ্টি বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সেসব অঞ্চলের নদীবন্দরকে এক নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

সতর্কবার্তায় বলা হয়েছে, রংপুর, রাজশাহী, পাবনা, বগুড়া, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, কুষ্টিয়া, যশোর, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, কুমিল্লা, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার ও সিলেট অঞ্চলের উপর দিয়ে দক্ষিণ/দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরকে এক নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এর আগে গতকাল শুক্রবার থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকায় ২৩ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। আজকেও ভোর থেকে বৃষ্টি হচ্ছে।

সকাল ৭টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আকাশ আংশিক মেঘলা থেকে অস্থায়ীভাবে মেঘলা থাকতে পারে। হালকা বৃষ্টি হতে পারে। দক্ষিণ/দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৮ থেকে ১২ কিলোমিটার বেগে বাতাস বইতে পারে, যা অস্থায়ীভাবে ঘণ্টায় ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে বাতাস প্রবাহিত হতে পারে। দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।