ঢাকা      সোমবার ১৫, অগাস্ট ২০২২ - ৩১, শ্রাবণ, ১৪২৯ - হিজরী

কাবাডির চূড়ান্তপর্ব ২৯ ডিসেম্বর

আমার বাংলা ডেস্ক:আইজিপি কাপ-২০২১ জাতীয় যুব কাবাডি চ্যাম্পিয়নশিপ’-এর বালক ও বালিকা বিভাগের চূড়ান্ত পর্ব আগামী ২৯ ডিসেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে। ২ জানুয়ারি শেষ হবে অনূর্ধ্ব-১৯ বয়সভিত্তিক এ প্রতিযোগিতা। চূড়ান্ত পর্বের খেলাগুলো ঐতিহাসিক পল্টন ময়দানে অনুষ্ঠিত হবে।

উপজেলা-জেলা পর্যায় শেষে এরমধ্যে বিভাগীয় পর্বের খেলা শুরু হয়েছে। বালক বিভাগে ৫৮ ও বালিকা বিভাগে ৫১ জেলা এ পর্বে অংশগ্রহণ করছে। দলগুলোকে ৮ অঞ্চলে ভাগ করা হয়েছে। দুই বিভাগে আট অঞ্চলের শীর্ষ দুটি করে দল শিরোপা লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে।

গতকাল বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনে প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বের লোগো উন্মোচন করা হয়। এসময় প্রতিযোগিতার নানা তথ্য তুলে ধরেন আয়োজকরা। 

সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কাবাডি ফেডারেশনের সহসভাপতি ও পৃষ্ঠপোষক রানার গ্রুপের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান, যুগ্ম সম্পাদক-১ ও অতিরিক্ত ডিআইজি (ডেভেলপমেন্ট) গাজী মো. মোজাম্মেল হক এবং যুগ্ম সম্পাদক নেওয়াজ সোহাগ।

সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ কাবাডি ফেডারেশনের যুগ্ম সম্পাদক গাজী মো. মোজাম্মেল হক বলেন, কোভিড-১৯-এর কারণে দেশের ক্রীড়াঙ্গন ঝিমিয়ে পড়েছিল। জড়তা কাটাতে আমরা আইজিপি কাপ জাতীয় যুব কাবাডি জমকালো ভাবে আয়োজন করার উদ্যোগ নিয়েছি।’ 


 
তিনি আরো বলেন, সামনে যুব বিশ্বকাপ কাবাডি রয়েছে। সে আসরের জন্য খেলোয়াড় বাছাই প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। গেল আসরে আমরা তৃতীয় স্থান পেয়েছি। এবার আরও উন্নতি করতে চাই।

এরইমধ্যে এশিয়ান গেমসে প্রস্তুতি শুরু হয়েছে উল্লেখ করে তিনি যোগ করেন, ‘প্রাথমিকভাবে খেলোয়াড়দের ফিটনেস উন্নতির জন্য কাজ শুরু হয়েছে। খেলোয়াড়দের পাশাপাশি কোচদের মানোন্নয়নে ভারত থেকে দুজন কাবাডি বিশেষজ্ঞ আনা হয়েছে। নারী ও পুরুষ দুই দলকে প্রস্তুতির জন্য ভারতে পাঠানো হবে। সেখানে অনুশীলনের পাশাপাশি বিভিন্ন প্রাদেশিক দলের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচও খেলবে বাংলাদেশ দল।’

প্রতিযোগিতার প্রাথমিক পর্বে ৫৮ জেলার ৪১৭ উপজেলার ৪১৭১ ইউনিয়ন ও বালিকা বিভাগে ৫১ জেলার ৩৯৮ উপজেলার ৩৮৯৭ ইউনিয়ন অংশগ্রহণ করেছে। বালক বিভাগে ৫০,০৫২ জন খেলোয়াড় ও ১২,৫১৩ কোচ-কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করেছেন। বালিকা বিভাগে ৪৬,৭৬৪ খেলোয়াড় ও ১১,৬৯১১ কোচ-কর্মকর্তা অংশ নিয়েছেন।

এবি/এনএস

সংবাদটি শেয়ার করুন:

 


আরো সংবাদ














জনপ্রিয় বিষয় সমূহ: